ইংলিশ ফুটবল লিগ কাপের ফাইনালে শিরোপা জয়ের মিশনে মাঠে নামে দুই জায়ন্ট ম্যানচেস্টার সিটি ও চেলসি। লিগ কাপের ফাইনালে দুই দলের লক্ষ্য একটাই ছিল- তা হলো ষষ্ঠ শিরোপা জয়। তবে লড়াইটা যখন ইংলিশ ফুটবলের দুই পরাশিক্তির সেখানের কে ছাড় দিতে চাইবে!

লড়াইটাও হয়েছে সমানে সমান। নির্ধারিত ৯০ মিনিট ও অতিরিক্ত ৩০ মিনিট এই পুরো ১২০ মিনিটে গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই। ফলে টাইব্রেকারে নিষ্পত্তি হওয়া ম্যাচে ৪-৩ গোলে চেলসিকে হারিয়ে শেষ হাসিটা হাসলো ম্যানসিটি।এবারের মৌসুমের প্রথম শিরোপা জিতলো ম্যানচেস্টার সিটি। রবিবার রাতে লিগ কাপের ফাইনালে টাইব্রেকারে চেলসিকে ৪–৩ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সিটি।

নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ের খেলা গোলশূন্য থাকলে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। জর্জিনিয়ো চেলসির পক্ষে প্রথম শট নিয়ে ব্যর্থ হন। পরের তিন শটে দুই দলই গোল পেলেও লেরয় সানে ম্যানসিটির পক্ষে লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি। চেলসি চতুর্থ শট মিস করলে ম্যাচ জমে ওঠে। বের্নার্দো সিলভার পর রহিম স্টারলিংয়ের গোলে শিরোপা নিশ্চিত করে ম্যানসিটি। ক্লাব ইতিহাসে প্রথমবার কোনও বড় ট্রফি ধরে রাখলো তারা।

গোলের জন্য হন্যে হয়ে থাকা ম্যানসিটিকে রুখে দিতে পারাই ছিল প্রথম অর্ধে চেলসির সাফল্য। অবশ্য নিকোলাস ওতামেন্দি তাদের গোলরক্ষক কেপা আরিজাবালাগার পরীক্ষা নেন। সফলতার সঙ্গে আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডারকে রুখে দেন চেলসি গোলরক্ষক।

প্রথম ৪৫ মিনিটে ওই একটি স্পষ্ট সুযোগই লক্ষ্যে নিয়েছিল ম্যানসিটি। ২৮ মিনিটে সের্হিও আগুয়েরোর দুর্বল শট রুখে দিতে খুব কষ্ট করতে হয়নি কেপাকে।
বিরতির পর ৫৬ মিনিটে আগুয়েরো জালে বল জড়ালেও উদযাপন করতে পারেননি। গোলটি বাতিল হয় অফসাইডে।

ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি প্রযুক্তির ব্যবহারও মাঠে নেওয়া সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আনতে পারেনি।

চেলসি সুযোগ তৈরি করে ৬৬ মিনিটে। এডেন হ্যাজার্ডের বাড়ানো বলে নেওয়া এন’গোলে কাঁতের প্রথম নেওয়া শট গোলবারের উপর দিয়ে যায়। এরপর ৭৭ মিনিটে গোলমুখের দিকে ছুটে আসা বের্নার্দো সিলভাকে নিখুঁত ট্যাকলে রুখে দিয়ে চেলসিকে বাঁচান কাঁতে।

খেলার শেষ মুহূর্তে সিটি জর্জিনিয়োর বিরুদ্ধে হ্যান্ডবলের আপিল করলেও রেফারি সাড়া দেননি। ইনজুরি সময়ের তৃতীয় মিনিটে ফ্রি কিক থেকে উইলিয়ানের শট এদারসন গোলবারের উপর দিয়ে মাঠের বাইরে পাঠান।

অতিরিক্ত সময়ে আগুয়েরোকে রুখে ম্যাচ টাইব্রেকারে নেন কেপা। কিন্তু তিনি সফল হননি এই ধাপে। ম্যানসিটি লাভ করে তাদের ষষ্ঠ লিগ কাপ শিরোপা।

LEAVE A REPLY