আবারো সন্তানের পিতা হলেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের এক সময়ের মাঠ কাঁপানো ওপেনার ও অন্যতম তারকা খেলোয়াড় শাহরিয়ার নাফীস।মঙ্গলবার(১৯ মার্চ) রাতে তার ঘর আলো করে এসেছে ফুটফুটে এক কন্যা সন্তান। রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে পৃথিবীর মুখ দেখেছে তার কন্যা। আর এই সুখবরটি শাহরিয়ার নাফীস নিজেই জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সদ্যোজাত কন্যাকে নিয়ে একটি ছবিও দিয়েছেন শাহরিয়ার নাফীস। লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, ১৯ মার্চ ২০১৯ সালে রাত সাড়ে নয়টায় আল্লাহ আমাদের একটি কন্যা সন্তান দান করেছেন। মা ও সন্তান ভালো আছে। আমাদের জন্য সবাই দোয়া করবেন।’

শাহরিয়ার নাফীসের স্ত্রীর নাম ঈশিতা তাসমিন।১৩ বছর আগে শাহরিয়ার নাফিস-ঈশিতা তাসমি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। ঈশিতা পেশায় একজন আইনজীবী। আর নাফীস-ঈশিতা দম্পতির এটি দ্বিতীয় সন্তান। এ দম্পতির ঘরে ৯ বছর বয়সী পুত্রসন্তান রয়েছে। তার নাম শাহওয়ার আলী নাফীস।বর্তমানে সে ষষ্ঠ শ্রেণির মেধাবী ছাত্র।

২০০৪ সাল থেকে পেশাদার ক্রিকেট খেলা শুরু করেন শাহরিয়ার নাফিস। ওই বছর বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে জিম্বাবুয়ে ‘এ’ দলের বিপক্ষে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হয় তার। দৃষ্টিনন্দন ব্যাটিং পারফরম্যান্স দিয়ে খুব দ্রুতই জাতীয় দলে জায়গা করে নেন বাঁহাতি এই ওপেনার।২০০৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় তার।

এরপর টানা কয়েক বছর খেলেছেন বাংলাদেশ দলে। ওয়ানডে ও টেস্ট মিলিয়ে ঝুলিতে পুরেছেন পাঁচটি সেঞ্চুরি। কিন্তু ২০১৩ সালে এসে হঠাৎই দিক হারিয়ে বসেন টপ অর্ডার এই ব্যাটসম্যান। ছিটকে যান দল থেকে। সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছেন হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ফিরি ফিরি করে জাতীয় দলের আর ফেরা হয়নি বাঁহাতি এই ওপেনারের।

তবে নিয়মিত ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে যাচ্ছেন। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল), বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল), প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে নিয়মিতই ব্যাটে রান পাচ্ছেন ৩৩ বছর বয়সি এ তারকা।এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে খেলছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।

LEAVE A REPLY