ফতুল্লায় ঢাকা প্রিমিয়ার লীগের ম্যাচে মোহামেডানের কাছে চার উইকেটে হারলো খেলাঘর। খেলাঘরের দেয়া ১৯০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মোহামেডানের রকিবুল হাসানের অপরাজিত ৭৬ ঝড়ো ইনিংস এবং ভারতীয় অভিনব মুকুন্দ ও রনি তালুকদার মাঝারি স্কোরের পাঁচ ওভার বাকি থাকতেই জয় পায় মোহামেডান।

 

নিয়ন্ত্রিত বোলিং করে মাত্র ১৮৯ রানে খেলাঘরকে অল ইনিংসের ৪৬তম ওভারেই অল আউট করে রাব্বি-এনামুলরা। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করা খেলাঘরের হয়ে ওপেনার রবিউল ইসলাম রবি ৬৩ রানের ইনিংস খেলেন। আগে আউট হলো খেলাঘর। আরেক ওপেনার সালাউদ্দিন শুন্য রানে ফিরলেও দলকে ভালো সূচনা এনে দেন তিনি। তবে নাফিস ইকবাল ও নিজামুদ্দিনরা ব্যর্থ হলে চাপের মুখে পড়ে খেলাঘর।

 

যদিও গত ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ার অমিত মজুমদার ৫৩ রান যোগ করে দলকে লড়াকু স্কোরে পৌঁছে দিতে সাহায্য করে। তবে শেষের দিকে ব্যাটিং ব্যর্থতায় বড় স্কোর গড়তে পারে নি খেলাঘর।

এনামুল হক জুনিয়র ও জাতীয় দলের পেসার কামরুল হাসান রাব্বির বোলিংয়ে উইকেট হারিয়ে অল আউট হয় নবাগত খেলাঘর।

 

মোহামেডানের হয়ে কামরুল হাসান রাব্বি, তাইজুল ইসলাম ও মোহাম্মদ আজিম দুটি করে উইকেট নেন। তবে দিনের সেরা বোলার ছিলেন অভিজ্ঞ স্পিনার এনামুল হক জুনিয়র। দশ ওভারে মাত্র ৩০ রান খরচায় তিন উইকেট নেন তিনি।

 

অন্যদিকে খেলাঘরের হয়ে রবিউল ইসলাম রবি তিনটি উইকেট শিকার করেন। এছাড়া নাজমুস সাদাত ও তানভির একটি করে উইকেট নেন।

 

মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব: রকিবুল হাসান, এবাদত হোসেন, সৈকত আলী, অমিত কুমার নয়ন, জুবায়ের হোসেন, অভিষেক মিত্র, এনামুল জুনিয়র, মো. আজিম, সাজেদুল ইসলাম, রনি তালুকদার, শামসুর রহমান, জাবিদ হোসেন, আব্দুর রহমান রনি, তামিম ইকবাল, তাইজুল ইসলাম, শুভাশীষ রায়, মেহেদী হাসান মিরাজ ও কামরুল ইসলাম রাব্বি।

 

খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি: নাফিস ইকবাল, আরিফুর জামান সাগর, রেজাউল করিম রাজিব, রবিউল ইসলাম রবি, সালাউদ্দিন পাপ্পু, আরিফুল ইসলাম জনি, রাফসান আল মাহমুদ, মেহরাব হোসেন জোসি, ডলার মাহমুদ, আহমেদ সাদেকুর রহমান, অমিত মজুমদার, মঈন খান, নাজমুস সাদাত, নাজিমউদ্দিন ও মাসুম খান টুটুল

LEAVE A REPLY