ভারতের দাবির মুখে অনড় থাকতে পারছে না আইসিসি। আবারও ভারতের দাবি মেনে নিতে উঠেপড়েছে একটি পক্ষ! আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহর নিয়মের বাইরে কিছু করতে মোটেও রাজি নন; কিন্তু ভারত তো তার নিজের দেশ। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কিছুদিন আগেও সভাপতি ছিলেন তিনি।

এ কারণে নিজ দেশের বোর্ডের যাতে খুব বেশি ক্ষতি না হয়, তাই আগেই বিসিসিআইকে ১০০ মিলিয়ন রাজস্ব অতিরিক্ত দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি। যদিও ভারত প্রাথমিকভাবে সেই প্রস্তাব নাকচ করে দিয়ে, পূর্ণ ৫৭০ মিলিয়ন ডলার পাওয়ার জন্য জোর লবিং চালিয়ে অবশেষে ব্যর্থ হয়।

আইসিসির নতুন নির্ধারিত ফাইনান্সিয়াল মডেল কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় অনুমোদন পেয়ে গেছে ৯-১ ভোটের ব্যবধানে। সে অনুযায়ী আইসিসি সদস্য দেশগুলোর মধ্যে সমতার ভিত্তিতে ২৯৩ মিলিয়ন ডলার আট বছরের সাইকেলে পাওয়ার কথা ভারতের; কিন্তু ভোটে হেরে যাওয়ার পরও আইসিসি সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় অটল রয়েছে ভারত।

এমনই এক পরিস্থিতিতে, ভারতকে আগের প্রস্তাবিত সেই ১০০ মিলিয়ন ডলার অতিরিক্ত দেয়ার যে প্রস্তাব ছিল সেটাকে বৈধ করা যায় কিভাবে সেটাই ভাবতে শুরু করেছে এখন শশাঙ্ক মনোহর প্রশাসন। ইএসপিএন ক্রিকইনফো লিখেছে, শশাঙ্ক মনোহর বিসিসিআ সেক্রেটারি অমিতাভ চৌধুরীকে জানিয়ে দিয়েছেন, ওই ১০০ মিলিয়ন ডলার পাওয়ার রাস্তা এখনও বন্ধ হয়ে যায়নি। এখনও সুযোগ রয়েছে।

আইসিসি কার্যনির্বাহী কমিটির সভার ঘণ্টাখানেক আগে ভারতীয় বোর্ডের কর্মকর্তারা বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করেন। যার মধ্যে ছিল নতুন ফাইনান্সিয়াল মডেলের ওয়ার্কিং কমিটিও। যেখানে কমিটিতে রয়েছেন ইসিবির নির্বাহী প্রধান জাইলস ক্লাব, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার চেয়ারম্যান ডেভিড পিভার এবং শশাঙ্ক মনোহর। সেখানেই অমিতাভ চৌধুরীকে ১০০ মিলিয়ন ডলারের প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। ওয়ার্কিং কমিটি জানিয়ে দেয়, মনোহরের প্রস্তাবটা ব্যক্তিগত হলেও এখন এটা অফিসিয়াল।’ সেই ভিত্তিতেই এখনও আইসিসির কাছ থেকে অতিরিক্ত ১০০ মিলিয়ন ডলার পাওয়ার সুযোগ রয়েছে ভারত।

সূত্রঃ জাগো নিউজ২৪.কম

LEAVE A REPLY