“স্যার” খেতাব পেলেন অ্যালেস্টার কুক

অ্যালস্টার কুক বিশ্বের পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে যিনি নিজের প্রথম টেস্টের পর শেষ টেস্টেও শতরান করেছেন। শুধু ব্যাক্তিগত অর্জনই ছিল না নিজের সামর্থ্যের পরিচয় দিয়েছে দলকে নেতৃত্ব দিয়েও। বছর চারেক আগেই রঙিন পোশককে বিদায় বলেছেন ইংল্যান্ডের তারকা ওপেনার। এরপর নিজের রাজত্বটা কায়েম করে যাচ্ছিলেন টেস্ট ক্রিকেটে। তবে মাস তিনেক আগে হঠাৎ করে সেটা থেকেও ইস্তফা নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে তিনি । ভারতের বিপক্ষে সিরিজের পর তুলে রাখলেন দেশের জার্সিখানা। নিজের খেলোয়াড়ি জীবনে ইংল্যান্ডকে দুহাত ভরে দিয়েছেন কুক, ফলস্বরূপ তার সম্মানী হিসাবে এবার নামের আগে যুক্তরাজ্যের রাজ পরিবার কর্তৃক অন্যতম সর্বোচ্চ খেতাব ‘নাইইহুড’ (স্যার) খেতাব অর্জন করলেন তিনি।

গত সেপ্টেম্বরেই ক্রিকেট থেকে বিদায় নিয়েছেন অ্যালেস্টার কুক। টেস্ট ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের সর্বাধিক ও বিশ্বের পঞ্চম সর্বাধিক রান সংগ্রাহক হিসেবে রেকর্ড গড়েছেন তিনি। ১৬১টি টেস্ট ম্যাচে মোট সংগ্রহ ১২,৪৭২ রান। একইসঙ্গে আছে ৩৩টি শতরান প্রাক্তন এই ইংরেজ ব্যাটসম্যানের। যার শেষটা এসেছিল সেপ্টেম্বরে ভারতের বিরুদ্ধে ক্যারিয়ারের শেষ ইনিংসে। টেস্ট ক্যারিয়ারে কুকের প্রথম শতরানও এসেছিল ভারতের বিরুদ্ধেই। অধিনায়ক হিসেবেও কুক সফল ছিলেন। ৫৯টি টেস্ট ও ৬৯টি ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দেবার পর তিনি চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে ইংল্যান্ডের অধিনায়ক পদ থেকে সরে দাঁড়ান কুক।

২০০৭ সালে স্যার ইয়ান বথামের পর কোনও ক্রিকেটার এই সম্মান পেলেন! কুকের ‘নাইটহুড’ পাওয়ার পর ইংল্যান্ড-ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান কলিন গ্রেভস জানান, ‘কুক এই সম্মান পাওয়ায় আপ্লুত। অভিষেকের পর থেকে ক্রিকেট মাঠের ভিতরে ও বাইরে সসম্মানে উত্তীর্ণ হয়েছে ও। তাই ইংল্যান্ড ক্রিকেটকে কুক যা দিয়েছে, তাতে এটা ওর প্রাপ্য ছিল।’

LEAVE A REPLY