২০২০ সালের টি-২০ বিশ্বকাপ সরাসরি খেলতে পারছেনা বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা

২০১৯ সালে ওয়ানডে বিশ্বাকাপ অনুষ্ঠিত হবে এর পর বছর অর্থাৎ ২০২০ সালে ক্রিকেটের সবচাইতে উত্তেজনার আসর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এর আসর বসবে অস্ট্রেলিয়ায়। সেই আসরে যে দলগুলো সরাসরি খেলার সুযোগ পাচ্ছে তার তালিকা প্রকাশ করেছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। আর এই তালিকায় আছে আট দলের নাম এবং এই তালিকায় নাম নেই বাংলাদেশ আর তিনবার টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসরের ফাইনাল খেলা ও বিশ্বকাপ জয়ী শ্রীলঙ্কার নাম।র‍্যাংকিংয়ের নবম স্থানে আর দশে রয়েছে বাংলাদেশ।সরাসরি সুযোগ না পেলেও বিশ্বকাপে অবশ্য খেলার স্বপ্ন থাকছে দু’দলে। এজন্য গ্রুপপর্ব পেরিয়ে আসতে হবে বাঘ-সিংহদের।

মঙ্গলবার(১জানুয়ারি) গণমাধ্যমে পাঠানো আইসিসি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি র‍্যাংকিংয়ে শীর্ষে থাকা আট দল সরাসরি আসন্ন বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে। সেই তালিকায় আছে- পাকিস্তান, ভারত, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তান।

অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নেবে ১২ দল। র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষ আটের সঙ্গে শিরোপার লড়াইয়ে থাকবে আরও চার দল। র‍্যাংকিংয়ের নয় ও দশ নম্বরে থাকা দু’দলকে গ্রুপপর্ব ডিঙিয়ে তারপর মূলপর্বে খেলতে আসতে হবে। এজন্য আইসিসি টি-টোয়েন্টি বাছাইপর্ব থেকে উঠে আসা ছয় দলের সঙ্গে লড়তে হবে টাইগার ও লংকানদের।পরে এখান থেকে ৪ দল মূল আসরে খেলার ছাড়পত্র পাবে।

২০২০ সালের ১৮ অক্টোবর থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর।

LEAVE A REPLY