রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে আর্জেন্টিনার জন্য দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ বরাদ্দ ছিল। এরমধ্যে হাইতির বিপক্ষে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে ৪-০ ব্যবধানে জিতেছে আর্জেন্টিনা। মেসি ওই ম্যাচে করেছেন হ্যাটট্রিক। তবে জেরুজালেমে ইসরায়েলের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার প্রস্তুতি ম্যাচটি বাতিল করা হয়েছে। আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন ইসরায়েলে গিয়ে ওই ম্যাচ খেলবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আগামী ৯ জুন রাশিয়া যাওয়ার আগে ইসরায়েলে এসে মেসিদের একটি প্রীতি ম্যাচ খেলার কথা ছিল। তার জন্য বার্সেলোনায় প্রস্তুতি নিচ্ছিল হোর্হে সাম্পাওলির দল। কিন্তু ওই ম্যাচ নিয়ে ফিলিস্তিনি তীব্র ক্ষোভে ফেটে পড়ে। মেসিদের ইসরায়েলে এসে ম্যাচ খেলা উচিত নয় বলে দাবি করে দেশটির সমর্থকরা। তাতেও যখন ম্যাচ বাতিলের কোন সম্ভাবনা তৈরি হয়নি তখন মেসিদের বিভিন্ন ধরণের হুমকি দিয়েছে ফিলিস্তিনি।

ফিলিস্তিনির ওপর ইসরায়েল দীর্ঘদিন ধরে হামলা চালাচ্ছে। দেশটিতে চলছে মানবিক বিপর্যয়। এমন সময় মেসিদের ইসরায়েলে এসে খেলাটা ভালোভাবে দেখছে না ফিলিস্তিনি। তবে ম্যাচটি যাতে মেসিরা খেলতে আসে সেজন্য ইসরায়েল প্রধানমন্ত্রী বেনিজামিন নেতানিয়াহু আর্জেন্টিনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বলেছেন।

ইসরায়েল দূতাবাস থেকে পরে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে না বলে একটি বিবৃতি দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, মেসিকে নিয়ে বিভিন্ন হুমকি আসছে। যা স্বাভাবিকভাবে তার সতীর্থদের মধ্যে ভীতির সঞ্চার করছে এবং প্রীতি ম্যাচটি তারা খেলতে ভয় পাচ্ছে। তাই এই ম্যাচটি না খেলাই ভালো হবে বলে দূতাবাসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY